জোনাকি পোকা কিভাবে আলো তৈরি করে

জোনাকি পোকা কিভাবে আলো তৈরি করে?

জোনাকি পোকা কিভাবে আলো তৈরি করে?: আমরা যারা গ্রামে থাকি কিংবা শৈশবকাল গ্রামে কাটিয়েছি তারা জোনাকি পোকা অবশ্যই দেখে থাকব। আর শহরের বাসিন্দারা জোনাকি পোকা না দেখলেও জোনাকি পোকার কথা শুনে থাকব। জোনাকি পোকার একটি অন্যতম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি আলো তৈরি করতে পারে। প্রশ্ন হচ্ছে এর দেহে আলো কিভাবে উৎপন্ন হয়? জোনাকি পোকার আলো তৈরির করার ক্ষমতার পিছনে রহস্য কী? আর যেহেতু আলো উৎপন্ন হয় তাই তাপ উৎপন্ন হবে, তাহলে সেই তাপে জোনাকি পোকার কোন ক্ষতি হয় না কেন?
জোনাকি পোকা কিভাবে আলো তৈরি করে সেবিষয়ে জানার আগে জেনে নিই জোনাকি পোকা কি?
জোনাকি পোকা কিভাবে আলো তৈরি করে?

জোনকি পোকা ( Firefly insects ) কি?

আসলে জোনাকি পোকা হচ্ছে এক ধরনের গুবরে পোকা যার ডানা রয়েছে। জোনাকি পোকার আলো তৈরীর প্রক্রিয়া টি সম্পূর্ণ রাসায়নিক প্রক্রিয়া।

জোনাকি পোকা কিভাবে আলো তৈরি করে?

যে প্রক্রিয়ায় Firefly insects অর্থাৎ জোনাকি পোকা  আলো তৈরি করে তাকে বলা হয় বায়োলুমিনিসেন্স। জোনাকি পোকার দেহের শেষের অংশকে বলা হয় ফায়ারফ্লাই ল্যান্টার্ন। এই অংশে এক ধরনের কোষ থাকে যাকে ফটোসাইট বলা হয়। এই কোষে এক ধরনের পদার্থ লুসিফেরিন উৎপন্ন হয়। এই লুসিফেরিন, লুসিফেরাস নামক এনজাইমের সাহায্যে এটিপি ও অক্সিজেন এর উপস্থিতিতে ডাই অক্সিটেন নামক পদার্থ উৎপন্ন করে। এই ডাই অক্সিটেন পদার্থ থেকে অক্সিলুসিফেরিন নামক পদার্থ উৎপন্ন হয়। এই অক্সি লুসিফেরিন পদার্থ থেকে সবুজ, নীল রংয়ের আলো উৎপন্ন হয়। ফটোসাইট কোষে আরেকটি পদার্থ থাকে যেটি হচ্ছে ইউরিক এসিডের ক্রিষ্টাল। সবুজ, নীল আলো এই ক্রিষ্টালে প্রতিফলিত হয়ে বাইরে বেরিয়ে আসে।

এখন আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন হচ্ছে যে জোনাকি পোকা কেন আলো তৈরি করে? তারা কি রাতে চোখে দেখতে পায় না?

জোনাকি পোকা রাতে দেখার জন্য আলো তৈরি করে না। তারা আলো তৈরি করে বিভিন্ন সংকেত সৃষ্টি করে। বিশেষত প্রজননের সময় তারা এই কাজটি করে থাকে। প্রথমে মহিলা জোনাকিপোকা আলো সৃষ্টি করে পুরুষদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে। পরে পুরুষ পোকারা আলো তৈরি করে নাচানাচি করে নারীদের দৃষ্টি আকর্ষন করার চেষ্টা করে। পরে মহিলা পোকা যে পুরুষকে পছন্দ করবে তার সাথেই মিলিত হয়। আশাকরি জোনাকি পোকার আলো তৈরীর ব্যাপারটি জেনে গেছেন।

জোনকির পিছনে আলো জ্বলে কেন

 

জোনাকি পোকা আলো তৈরি করলেও তার দেহের কোন ক্ষতি হয় না কেন?

আমাদের ঘরে যে লাইট ব্যবহার করি সেগুলোতে আলোক শক্তির সাথে তাপশক্তি উৎপন্ন হয়। এখানে অনেক বিদ্যুৎ শক্তি নষ্ট হয় তাপশক্তি উৎপন্ন হওয়ার জন্য। খুব কম পরিমাণ বিদ্যুৎ শক্তিই আলোক শক্তিতে রূপান্তরিত হয়। কিন্তু জোনাকি পোকার ক্ষেত্রে তা হয়না।

জোনাকি পোকা যে আলো তৈরি করে তাকে কোল্ড লাইট বা ঠান্ডা আলো বলা হয়। কারণ জোনাকি পোকা যে আলো তৈরি করে তাতে কোন তাপশক্তি উৎপন্ন হয় না বা তাপশক্তি উৎপন্ন হলেও খুবই নগণ্য অর্থাৎ জোনাকি পোকার আলো তৈরি করার ব্যাপারটি খুবই সাশ্রয়ী। সেখানে প্রায় সম্পূর্ণ রাসায়নিক শক্তি আলোক শক্তিতে রূপান্তরিত হয়। এজন্য জোনাকি পোকার কোন ক্ষতি হয় না।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Social Share Buttons and Icons powered by Ultimatelysocial